পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর তৃতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শুভেচ্ছা বার্তা

পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর তৃতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শুভেচ্ছা বার্তা

“পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর তৃতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শুভেচ্ছা বার্তা”

আসসালামু আলাইকুম,
সুবিধা বঞ্চিত পথশিশুদের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা, পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীদের স্বাবলম্বী করণ, দরিদ্রতার কারণে যাতে কোন শিশু শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হতে না পারে সেই প্রত্যয় নিয়ে “নিঃস্বার্থে সেবা করি, পথশিশু মুক্ত বাংলাদেশ গড়ি” এই স্লোগান কে সামনে রেখে ২০১৭ সালের ২৭ এপ্রিল প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন।

দেখতে দেখতে আজ শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন ৩ বছর পেরিয়ে ৪র্থ বছরে পদার্পন করছে। পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন শুরু করার প্রথম দিকে অনেকে আমাকে নিয়ে উপহাস করতো, নানান ধরণের কথা বলতো। অনেকে বলতো এটা আমার পক্ষে চালিয়ে নেয়া সম্ভব না। আলহামদুলিল্লাহ ২০১৭ সালের ২৭ এপ্রিল পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন কুমিল্লা থেকে যাত্রা শুরু করে এখন পর্যন্ত ৪৪টি জেলায় ৬৭টি জেলা/উপজেলা শাখা নিয়ে কার্যক্রম চলছে।

আমরা চেষ্টা করছি গ্রামগঞ্জ ও শহরের স্বেচ্ছাসেবী মননের কিছু সাহসী উদ্যমী তরুণ তরুণীদের নিয়ে দেশের মানুষের কল্যাণে ভালো কিছু করার। সেই পেক্ষিতে এখন পর্যন্ত আমরা ৭টি জেলায় ১৪টি অদম্য স্কুল গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছি। যেখানে সর্বমোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৭১৭ জন। এছাড়াও পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর কার্যক্রম সমাজের অসহায় মানুষ পর্যন্ত বিস্তৃত। গরিব অসহায় ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষার সামগ্রী বিতরণ, সুবিধা বঞ্চিতদের মাঝে ইফতার সামগ্রী, ঈদ সামগ্রী, ঈদ পোষাক বিতরণ। শীত মৌসুমে শীত বস্ত বিতরণ, বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ও চারা গাছ বিতরণ। অদম্য ব্লাড ব্যাংক কর্তৃক বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্নয়, রক্তদাতা তৈরি ও রক্ত সংগ্রহ করে দেওয়া। বিভিন্ন দুর্যোগের সময় ত্রান সামগ্রী বিতরণ। কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা, সচেতনতা মূলক ক্যাম্পিং ও জাতীয় দিবস গুলো উদযাপন সহ বিভিন্ন সমউপযোগী প্রোগ্রামের মধ্য দিয়ে ছাত্রছাত্রীদের পড়ালেখার মান উন্নয়নের পাশাপাশি তাদের কে আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর অদম্য স্বেচ্ছাসেবীরা।

সত্যি বলতে এতো অল্প সময়ে এতো কিছু করা খুব সহজ ছিলো না। অনেক কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়েছিলো, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছিলো আমাদের। অনেকে আমাদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, অদম্য স্বেচ্ছাসেবীরা পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। আপনাদের সহযোগিতা ও দিক নির্দেশনায় পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন আজ এতোদূর অব্দি আসা।

সত্যি আমি আজ অনেক বেশি গর্বিত, সারা দেশে প্রায় সাড়ে ৫ হাজার অদম্য স্বেচ্ছাসেবীদের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পেরে। স্বার্থহীন ভাবে কিছু মানুষকে পাশে পাওয়াতে আমরা এই কাজ গুলো করে যেতে পারছি। তাদের কাছে আমি আজীবন কৃতজ্ঞ থাকবো।

আপনারা নিশ্চয়ই অবগত আছেন বাংলাদেশ সহ সাড়া পৃথিবীতে চলমান বিপদ কভিড-১৯ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অনেক মানুষ মৃত্যবরণ করেছেন। আমি তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং যারা অসুস্থ রয়েছেন তাদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। আলহামদুলিল্লাহ আমাদের কোন স্বেচ্ছাসেবী এখনও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি, মহান রাব্বুল আলামিন সবাইকে হেফাজত করুক। চলমান বিপদ কভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের এখন পর্যন্ত কোন ভ্যাক্সিন আবিষ্কার না হওয়ায় এর থেকে পরিক্রান পাওয়ার মহা ঔষধ হচ্ছে নিজে সচেতন থাকা এবং অন্যকে সচেতন করা। দেশবাসী কে সচেতন করার লক্ষ্যে সাড়া দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সচেতন মূলক ক্যাম্পিং, মাস্ক, লিফট, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান ইত্যাদি বিতরণ করেছে আমাদের অদম্য স্বেচ্ছাসেবীরা।

দীর্ঘ ১ মাসের উপরে বাংলাদেশ লক-ডাউনে থাকায় কর্মহীন মানুষ গুলো বেশ অর্থ সংকটে পড়ে গেছে। দিনমজুর, মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষ গুলো খুব কষ্টে জীবন যাপন করছে। তাই সমাজের বিত্তশালীদের আহবান করবো এই মানুষ গুলোর পাশে দাঁড়াবার, তাদের কে সহযোগী করার। ইতিমধ্যে সাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে ১৯টি ধাপে প্রায় ৩১শত পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেছে পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর অদম্য স্বেচ্ছাসেবীরা। লক-ডাউনে আটকে পড়া কর্মহীম মধ্যবিত্ত পরিবারের যে মানুষগুলো আত্মসম্মানে ত্রানের জন্য লাইনে দাঁড়াতে পারে না তাদের জন্য আমাদের চলমান আরেকটা ইভেন্ট “ত্রাণ যাবে আপনার বাড়ি” এর নাম্বারে কল দিলে তাদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন আমাদের অদম্য স্বেচ্ছাসেবীরা। ইতিমধ্যে আমাদের হটলাইন নাম্বারে সাড়া দেশ থেকে প্রায় ৯ শতাধিক পরিবার কল দিয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি তাদের বাড়িতে ত্রান পৌঁছে দেওয়ার। ইতিমধ্যে ৬ শতাধিক পরিবারের বাড়িতে আমরা ত্রান সামগ্রী পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছি। আমি আশা করবো আপনারাও অসহায় মানুষ গুলোর পাশে এসে দাঁড়াবেন।

পবিত্র রমজান মাস প্রশিক্ষনের মাস নেক আমলের মাস। এমাসে আমাদের এমন কিছু তাকওয়াপূর্ণ অভ্যাস করা উচিত যে সমস্ত অভ্যাস গুলো বাকি ১১ মাস সহ জীবনের শেষ পর্যন্ত আমরা টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করতে পারবো। আল্লাহ রব্বুল আলামীন আমাদের রোজা সহ নেক আমল গুলো কবুল করে নিন।

পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এতো দূর অব্দি আসার এক মাত্র কারিগর আমাদের সকল অদম্য স্বেচ্ছাসেবীরা। তাদের অক্রান্ত পরিশ্রমে এতো দূর অব্দি আসা। তাই পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন এর সাথে সম্পৃক্ত সকল শুভাকাঙ্ক্ষী, উপদেষ্টা, শাখা সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, কার্যকারি পরিষদের সদস্য ও সকল অদম্য স্বেচ্ছাসেবীদের জানাই অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা।

দীর্ঘ তিনটি বছর যারা আমাদের পরামর্শ, দিকনির্দেশনা ও অর্থ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা। আশাকরি বিগত দিন গুলোর মত সামনের দিন গুলোতেও আমাদের পাশে থাকবেন।

সবাই কে তৃতীয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আন্তরিক শুভেচ্ছা।
জয় হোক মানবতার, জয় হোক পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশনের, জয় হোক বাংলাদেশের।

শুভেচ্ছান্তে,
নাজমুল হাসান রাসেল
প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় সভাপতি
পথশিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536