প্রিয় নবী (দ.) কে অবমাননা করে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে ফ্রান্সকে বয়কট করতে হবেঃ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত এর শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

প্রিয় নবী (দ.) কে অবমাননা করে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে ফ্রান্সকে বয়কট করতে হবেঃ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত এর শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ফ্রান্সে প্রিয়নবী হযরত মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম’র কল্পিত ছবি বানিয়ে ও তা বিকৃতভাবে উপস্থাপন করার প্রতিবাদে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত ঐক্য পরিষদ, ঢাকা’র আহ্বানে আজ ০৬ নভেম্বর’২০ শুক্রবার বিকাল দুইটায় রাজধানী ঢাকার প্রায় শতাধিক মসজিদ থেকে একযোগে প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

এতে দেশের শীর্ষস্থানীয় ওলামা, পীর-মাশায়েখ ও ইমাম খতিবরা ফ্রান্সের পণ্য বয়কট করার দাবি জানিয়ে বলেন, ফ্রান্স থেকে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে সমগ্র মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের কলিজায় আঘাত দেয়া হয়েছে। এর পূর্বেও তারা “শার্লি এবদো” ম্যাগাজিনে এরকম ব্যঙ্গচিত্র এঁকে মুসলমানদের বিশ্বাসের অবমাননা করায় সমস্ত মুসলিম বিশ্ব আজ ক্ষুব্ধ ও হতবাক। পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব, মহান আল্লাহর প্রেরিত প্রিয়নবী ও রসূল হযরত মোহাম্মদ (দ.)কারো সাথে ঝগড়া করেছেন বা কাউকে আইনবহির্ভূত ভাবে হত্যা করেছেন বা আঘাত করেছেন এমন কোনো নজীর নেই। অথচ মানবতার কান্ডারী নবী, পৃথিবীতে শান্তির বানী পৌঁছিয়ে দেয়ার জন্য নিজের পবিত্র রক্ত ঝরিয়েছেন।

আর আজ সেই নবীজীর প্রতি ব্যঙ্গ বিদ্রুপ করা, প্রিয় নবীর শানে অবমাননাকর কিছু করা শুধু পবিত্র ধর্ম ইসলামের অবমাননা নয়, বরং সমগ্র মানবজাতিকে হেয় করার শামিল। তাই আমরা জোর দাবী জানাচ্ছি- এ ব্যঙ্গচিত্রে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ায় ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট ইম্মানুয়েল ম্যাক্রনকে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়াসহ ভবিষ্যতে এহেন অপকর্ম ত্যাগ করার অঙ্গীকার করতে হবে।

বাংলাদেশ সরকারসহ জাতিসংঘ, ওআইসি ও সার্কসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাসমূহ ফ্রান্স এর সাথে সকল ব্যবসায়িক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে। নতুন করে ফরাসী পণ্য যাতে বাজারে ঢুকতে না পারে সে ব্যবস্থা নিতে হবে। সাথে সাথে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ক্ষমা চাওয়ার ব্যবস্থা করা হোক। নয়তো এদেশের সুন্নী মুসলিম নবীপ্রেমিক জনতা ফ্রান্স দূতাবাস বন্ধ ও ফ্রান্সের সাথে সকল ধরণের সম্পর্ক ছিন্ন করতে সরকারকে বাধ্য করবে। আজ বাদে জুমা রাজধানী’র শতাধিক মসজিদ থেকে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে একযোগে প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআ’ত ঐক্য পরিষদের ব্যানারে কমলাপুর জামে মসজিদে পীরে তরিকত আল্লামা খাজা আরিফুর রহমান তাহেরী, আজিমপুর চৌরাস্তা বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদে আল্লামা মোশাররফ হোসেন হেলালী, মুগদা মদীনাবাগ শাহী জামে মসজিদ থেকে আল্লামা আ.ন.ম. মাসউদ হোসাইন আল-কাদেরী, মিরপুর এলাকায় পীরে তরিকত আল্লামা ফকির মোসলেহউদ্দীন, আশকোনা হজ ক্যাম্পে পীরে তরিকত আল্লামা আবদুর রহমান আল কাদেরী, বাসাবো পদ্মকানন জামে মসজিদে অধ্যক্ষ আল্লামা হাফেজ রফিকুল ইসলাম, মধুবাগ রামপুরা লিংক রোডে আল্লামা হাবীবুল্লাহ বাগদাদী আলকাদেরী, মাদারটেক বাজার মসজিদ থেকে অধ্যক্ষ আল্লামা কাজী আবু জাফর মুহাম্মদ হেলালউদ্দীন, কমলাপুর পুরাতন বাজার জামে মসজিদে আল্লামা হাসানুর রহমান হোসাইনী নক্সবন্দী, মগবাজারে পীরজাদা মাহবুবউল্লাহ আল কাদেরী, লক্ষীবাজারে পীরে তরিকত আল্লামা মোতাসিম বিল্লাহ রাব্বানী, বাসাবো ছায়াবিথী আবাসিক এলাকায় মাওলানা মিছবাহউদ্দীন আশরাফী, সিপাহীবাগ এলাকায় মাওলানা কামরুজ্জামান পাটোয়ারী, শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনিতে মাওলানা গাজী ফরিদউদ্দীন, রামপুরা এলাকায় মাওলানা তোফায়েল আহমদ, গোড়ান ছাপড়া মসজিদ থেকে মুফতি ইবরাহীম খলিল আড়াইহাজারী, মোহাম্মদপুর ঢাকা উদ্যানে মাওলানা কামরুল আহসান আল কাদেরী, পাটুয়াটুলি খানকা শরীফ মসজিদ থেকে পীরজাদা হাফিজ আরিফ বিল্লাহ রাব্বানী, ধলপুর স্টাফ কোয়ার্টার থেকে মুফতি মাহমুদুল হাছান আনছারী, কেরানীগঞ্জ চুনকুটিয়া এলাকায় পীরজাদা নাসির বিল্লাহ রাব্বানী, মিরপুর ১ থেকে মাওলানা হাসানুজ্জামান চিশতী, আশকোনা পাক পাঞ্জাতন দরবার থেকে মাওলানা হাফেজ মোশতাক আহমদ মোজাহিদ, মাওলানা দেলোয়ার হোসেন নঈমী, দক্ষিণ খান থেকে মাওলানা মিজানুর রহমান তাহেরী, ডেমরা মীরপাড়া কমপ্লেক্স মসজিদ থেকে হাফেজ মাওলানা মুরতাদ্বা ইবনে মুস্তাফা প্রমুখসহ শতাধিক খতিব ও ইমামদের নেতৃত্বে একযোগে এ বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বার্তা প্রেরক,
এম.এম নাঈম উদ্দীন,
দপ্তর সচিব,
আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত ঐক্য পরিষদ, ঢাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536